মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৩:৫৪ অপরাহ্ন

ডিএসইর পরিচালক : ইমনের শূন্য পদে সিদ্দিকুর

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম বৃহস্পতিবার, ৮ অক্টোবর, ২০২০
  • ১৮০ বার পঠিত

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) শেয়ারহোল্ডার পরিচালক নির্বাচিত হয়েছেন স্টার্লিং স্টকস অ্যান্ড সিকিউরিটিজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ গার্মেন্ট ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিজিএমইএ) সাবেক সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমান।

তিনি ডিএসইর সাবেক শেয়ারহোল্ডার পরিচালক মিনহাজ মান্নান ইমনের স্থানে অভিষিক্ত হবেন। ছুটি ছাড়াই টানা তিনমাস পর্ষদ সভায় অনুপস্থিত থাকার গত ২৬ সেপ্টেম্বর ইমনের পদ শূন্য ঘোষণা করা হয়।

বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) ডিএসইর পরিচালনা পর্ষদ আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমানকে নতুন শেয়ারহোল্ডার হিসেবে গ্রহণ করেন।

এ বিষয়ে ডিএসইর এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, শেয়ারহোল্ডার পরিচালকের একটি পদ শূন্য হওয়ায় কোম্পানি আইন ১৯৯৪ এর ৯১(১)(গ) এবং ডিএসই আর্টিকেলস্ অব অ্যাসোসিয়েশনের আর্টিকেল ১৬৩ অনুযায়ী আজ ডিএসইর পরিচালনা পর্ষদ সভায় সিদ্দিকুর রহমানকে শেয়ারহোল্ডার পরিচালক হিসেবে মনোনিত করা হয়েছে।

‘কোম্পানি আইনের বিধান অনুযায়ী সিদ্দিকুর রহমান ডিএসইর ৫৯তম বার্ষিক সাধারণ সভায় অবসর গ্রহণ করবেন’ বলেও জানায় ডিএসই।

মো. সিদ্দিকুর রহমান ফেডারেশন অফ বাংলাদেশ চেম্বার্স অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং স্টার্লিং গ্রুপের চেয়ারম্যান৷ তিনি বিজিএমই’র সাবেক সভাপতি৷ বিজিএমই’র সভাপতি হওয়ার আগে তিনি বিজিএমইএ’র ২০১০-২০১১ মেয়াদে সহ-সভাপতি (অর্থ) এবং ২০১২-২০১৩ মেয়াদে দ্বিতীয় সহ-সভাপতি পদে দায়িত্ব পালন করেন।

তিনি প্রথমে স্টার্লিং গার্মেন্টস লিমিটেড প্রতিষ্ঠা করেন। পরবর্তীতে তিনি স্টার্লিং অ্যাপেরেলস লিমিটেড, ইউনিকর্ন সোয়েটারস লিমিটেড, স্টার্লিং ডেনিমস লিমিটেড, স্টার্লিং ক্রিয়েশনস লিমিটেড, স্টার্লিং লন্ড্রি লিমিটেড, ব্যান্ডো ডিজাইন লিমিটেড, লায়লা স্টাইলস লিমিটেডের মতো আরও ‘স্টার্লিং গ্রুপ’ এর অধীনে সংস্থা প্রতিষ্ঠা করেন।

তিনি ঢাকা ক্লাব লিমিটেড, উত্তরা ক্লাব লিমিটেড, আর্মি গল্ফ ক্লাব লিমিটেড, অল কমিউনিটি ক্লাব লিমিটেড, বাংলাদেশ ক্লাব লিমিটেড, ঢাকা বোট ক্লাব লিমিটেড, অ্যাপারেল ক্লাব লিমিটেড এবং বনানী ক্লাব লিমিটেডের সদস্য। তিনি বিজিএমইএ ইউনিভার্সিটি অব ফ্যাশন অ্যান্ড টেকনোলজির (বিইউএফটি) ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য।

তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় শিল্প ও বাণিজ্য সম্পাদক এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক উপ কমিটির সদস্য সচিব।

উল্লেখ্য ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে রাজধানীর রমনা থানায় র‌্যাবের দায়ের করা মামলায় গ্রেফতারের পর চার মাস কারাগারে ছিলেন মিনহাজ মান্নান ইমন। গত ৭ সেপ্টেম্বর তিনি জামিনে ছাড়া পান। কারাগারে থাকাকালীন তিনি ডিএসইর পর্ষদ সভায় উপস্থিত থাকতে পারেননি।

আবার এ সময় তার পক্ষে ছুটির আবেদন করাও সম্ভব হয়নি। অবশ্য তার স্ত্রী ছুটির আবেদন করলেও সেটি বিবেচনার সুযোগ নেই বলে মনে করছে ডিএসইর পর্ষদ। এ কারণে টানা তিন মাস পর্ষদ সভায় অনুপস্থিত থাকার কারণে তার পদ শূন্য করে ডিএসইর পর্ষদ।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2019 Bankbimabd
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbankbimabd41