ঢাকা বুধবার, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২২
ফারইস্ট ইসলামী লাইফের মালিকানায় বেক্সিমকো গ্রুপ
  • ব্যাংকবীমাবিডি
  • ২০২২-০২-০৭ ২০:২৫:২০

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ফারইস্ট ইসলামী লাইফ ইনস্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের মালিকানায় এসেছে বেক্সিমকো গ্রুপ। এ গ্রুপের দুটি প্রতিষ্ঠান জুপিটার বিজনেস লিমিটেড ও ট্রেডনেক্সট ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড প্রায় ২০ শতাংশ শেয়ার কিনে নিয়েছে।

এর মধ্যে জুপিটার বিজনেস লিমিটেড ৯ দশমিক ৯০ শতাংশ ও ট্রেডনেক্সট ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড ৯ দশমিক ৯১ শতাংশ শেয়ার কিনেছে। এ শেয়ার ধারণের ফলে ফারইস্ট ইসলামী লাইফ ইনস্যুরেন্সের পরিচালনা পর্ষদ পুনর্গঠন করেছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

নতুন পরিচালনা পরিষদে বেক্সিমকো গ্রুপের পাঁচজনকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। একই সঙ্গে পুরনো পর্ষদে ভেঙে দিয়ে সেখানে নতুন করে আরও কয়েকজনকে স্বতন্ত্র পরিচালকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

বেক্সিমকো গ্রুপের দুটি প্রতিষ্ঠান থেকে ট্রেডনেক্সট ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডের পক্ষ থেকে পর্ষদে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে শান্তা অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট লিমিটেডের ভাইস চেয়ারম্যান আরিফ খান ও বেক্সিমকো গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক মোস্তফা জামানুল বাহারকে।

আর জুপিটার বিজনেস লিমিটেডের পক্ষে পর্ষদে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে বেক্সিমকো ফার্মাসিটিউক্যালসের প্রধান অর্থ কর্মকর্তা (সিএফও) আলী নেওয়াজ, বেক্সিমকো টেক্সটাইলের মহা-ব্যবস্থাপক মাসুদ মিয়া ও ব্যবসায়ী জহুরুল ইসলাম চৌধুরীকে।

এ সংক্রান্ত একটি চিঠি অর্থ মন্ত্রণালয়ের সচিব, বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের (আইডিআরএ) চেয়ারম্যান এবং ডিএসই, সিএসই ও সিডিবিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক(এমডি) কাছে বিএসইসির পক্ষ থেকে পাঠানো হয়েছে। একই সঙ্গে কোম্পানিটির চেয়ারম্যান, সদ্য নিয়োগ পাওয়া স্বতন্ত্র পরিচালক এবং মনোনীত পরিচালকদের কাছে চিঠি পাঠিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

নতুন নিয়োগ পাওয়া স্বতন্ত্র পরিচালকরা হলেন; শেখ কবির হোসেন, ডা. লাফিফা জামাল, মোজাম্মেল হক, মো. ইব্রাহিম হোসেন খান, শেখ মামুন খালেদ এবং ডা. মো. রফিকুল ইসলাম। মনোনীত পরিচালক হলেন; ফারইস্ট লাইফের স্পন্সর মো. হেলাল মিয়া ও ফারইস্ট সিকিউরিটিজ।

বিএসইসির চিঠিতে বলা হয়, বিনিয়োগকারী এবং পুঁজিবাজারের স্বার্থে কমিশন ফারইস্ট ইসলামী লাইফের পরিচালনা পর্ষদ পুনর্গঠনে সম্মতি দিয়েছে। ছয় ব্যক্তিকে স্বতন্ত্র পরিচালক এবং চারজনকে শেয়ার ধারণের মাধ্যমে মনোনীত পরিচালক হিসেবে নির্ধারণ করা হয়েছে। এই চিঠি পাওয়ার পর আগের চিঠির কার্যক্রম বাতিল হবে।

উল্লেখ্য, আর্থিকসহ নানা অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনার অভিযোগে গত বছরের সেপ্টেম্বরে ফারইস্ট ইসলামী লাইফ ইনস্যুরেন্সের পর্ষদ পুনর্গঠন করে ১০ জন স্বতন্ত্র পরিচালক নিয়োগ দেয় কমিশন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. রহমত উল্লাহকে পুনর্গঠিত পর্ষদের চেয়ারম্যান করা হয়।

পর্ষদে স্বতন্ত্র পরিচালক হিসেবে ছিলেন মোহাম্মদ সানাউল্লাহ অ্যান্ড অ্যাসোসিয়েটসের প্রধান নির্বাহী ও প্রধান পরামর্শক মোহাম্মদ সানাউল্লাহ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাংকিং অ্যান্ড ইনস্যুরেন্স বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. রফিকুল ইসলাম, অবসরপ্রাপ্ত অতিরিক্ত সচিব মো. মোফাজ্জল হোসেন, অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা কর্নেল গাজী মো. খালিদ হোসেন, স্নেহাশীষ মাহমুদ অ্যান্ড কোম্পানি চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টসের পার্টনার স্নেহাশীষ বড়ুয়া, একাত্তর টেলিভিশনের প্রধান সম্পাদক ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোজাম্মেল হক, জি সেভেন সিকিউরিটিজের চেয়ারম্যান সাজেদুর রহমান, জনতা ব্যাংকের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. জিকরুল হক এবং নর্দার্ন জেনারেল ইনস্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের সাবেক চেয়ারম্যান জহুরুল ইসলাম চৌধুরী।

আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ bankbimabd এ লাইক দিন

 

গ্রাহকদের অনাস্থায় ধুঁকছে দেশের বীমা খাত
ফারইস্ট ইসলামী লাইফের মালিকানায় বেক্সিমকো গ্রুপ
জনতা ইন্স্যুরেন্স থেকে বশির আহমেদকে অপসারণ